ঢাকা মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২

Star Sangbad || স্টার সংবাদ

স্বজনদের মরদেহ পুড়িয়ে সেই ছাই খেয়ে ফেলেন তারা

ফিচার ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৪:২৫, ২৯ মে ২০২২

স্বজনদের মরদেহ পুড়িয়ে সেই ছাই খেয়ে ফেলেন তারা

আধুনিক সমাজে বসবাসকারী মানুষেরা হয়তো তাদের রীতিনীতিকে বর্তমানে তেমন একটা গুরুত্ব দেয়না। কিন্তু পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে বসবাসকারী আদিবাসী উপজাতিরা আজও তাদের রীতিনীতিকে কঠোর বাবে অনুসরন ও পালন করে থাকে। অনেকাংশেই তাদের এই  রীতি সভ্য সমাজের মানুষের কাছে অগ্রহণযোগ্য ও মর্মান্তিক ভাবে বিবেচিত হয়। তবুও তারা প্রতিনিয়ত তাদের এধরনের রীতিকে অনুসরন করে চলছে। আজ আমরা ইয়ানোমামি নামে এমনই একটি উপজাতির কথা আপনাদের বলব, যারা মৃত্যুর পরে তাদের স্বজনদের লাশ পঁচানোর পর হার পুড়িয়ে সেই ছাই খেয়ে ফেলে।

ভেনিজুয়েলা এবং ব্রাজিলের সীমান্তে ইয়ানোমামি উপজাতির বসবাস। আমাজনের বসবাসকারী অন্যতম প্রধান উপজাতিও এরা। আমাজন রেইনফরেস্টের প্রায় ২৫০টি গ্রামে প্রায় ৩৫০০০ সদস্য রয়েছে এই গোত্রের। 

এই উপজাতির অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার রীতি বেশ আশ্চর্যজনক ও মর্মান্তিক। আপনি জেনে অবাক হবেন যে, এই উপজাতি বিশ্বাস করে মানুষের মৃত্যু কোন স্বাভাবিক কাজ নয়। বরং কোন অশুভ শক্তির কারণে তারা মারা যায়। এমন অবস্থায় কেউ মারা গেলে গ্রামের লোকজন প্রায় ৪০-৪৫ দিন লাশ জমা করে রাখে। তত দিনে লাশ পচে যায়। পরে মৃত মানুষের লাশ পচিয়ে হাড়সহ অন্যান্য জিনিসপত্র পুড়িয়ে দেয়। এরপর যে ছাই পড়ে থাকে তা কলার স্যুপের সঙ্গে মিশিয়ে মৃতের পরিবারের সদস্যদের দেওয়া হয়। এছাড়াও, এই স্যুপটি গ্রামের প্রতিটি সদস্যকে বিতরণ করা হয় এবং ছাই সম্পূর্ণরূপে নিঃশেষ না হওয়া পর্যন্ত লোকেরা এটি পান করে। এই উপজাতির বিশ্বাস এটি করলে মৃত ব্যক্তির আত্মা শান্তি পায়। তারা আরও বিশ্বাস করেন যে ছাই খেলে মানুষের মধ্যে শক্তি বাড়ে।