ঢাকা রোববার, ২৩ জানুয়ারি ২০২২

Star Sangbad || স্টার সংবাদ

নিয়োগ নিয়ে ঢামেকে কর্মচারীদের সঙ্গে ছাত্রদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

স্টার সংবাদ

প্রকাশিত: ১৫:০৩, ১০ জানুয়ারি ২০২২

আপডেট: ১৫:১৩, ১০ জানুয়ারি ২০২২

নিয়োগ নিয়ে ঢামেকে কর্মচারীদের সঙ্গে ছাত্রদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

জনবল নিয়োগের ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের কর্মচারী ও ছাত্রদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় একজন কর্মচারী আহত হন। তার নাম জনি (৩৮)। দুই পক্ষের মধ্যে গণ্ডগোল চলার সময় হাসপাতালে আসা রোগীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। 

সোমবার (১০ জানুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর সোয়া ১২টা পর্যন্ত এমন পরিস্থিতি বিরাজ করে হাসপাতালে। 

জানা যায়, ঢামেকে আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে জনবল নিয়োগের প্রতিবাদে সোমবার অধ্যক্ষের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান কর্মসূচি ছিল হাসপাতালের চতুর্থ শ্রেণির সরকারি কর্মচারীদের। এই কর্মসূচি পালন করার জন্য সকালে কর্মচারীরা কলেজে প্রবেশ করতে চাইলে ঢামেক ছাত্রলীগ ও পুলিশ বাধা দেয়। এ সময় ছাত্রলীগের সদস্যদের সঙ্গে কর্মচারীদের ধাক্কাধাক্কি শুরু হয়। পরে রোগীদের ওয়ার্ড পর্যন্ত চলে দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া। 

একসময় কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. টিটো মিঞা ও হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. নাজমুল হকসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এসে পরিস্থিতি সামাল দেন। তাদের সঙ্গে পুলিশ সদস্যরাও ছিলেন।
 
এ বিষয়ে ঢামেক শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকিউল ইসলাম ফুয়াদ জানান, বঙ্গবন্ধুর প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে কলেজের সামনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দেয়ার সময় সেখানে অবস্থানরত চতুর্থ শ্রেণির কিছু লোকজন আমাদের ওপর চড়াও হয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ আমাদের আশ্বস্ত করেছেন, দোষী ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে তারা ব্যবস্থা নেবেন।

এদিকে চতুর্থ শ্রেণির সভাপতি আবু সাঈদ জানান, আউটসোর্সিং বাতিলের দাবিতে পূর্বঘোষণা অনুযায়ী কলেজের সামনে অবস্থান কর্মসূচি করার সময় ছাত্রদের সঙ্গে কথাকাটাকাটি ও হাতাহাতি হয়। ছাত্রদের আঘাতে আমাদের এক কর্মচারী আহত হয়েছেন।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের উপপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) ডা. আশরাফুল আলম জানান, কর্মচারী ও কলেজের ছাত্রদের মধ্যে একটি ভুল বোঝাবুঝির ঘটনা ঘটেছে। পরবর্তীতে পরিস্থিতি শান্ত করে যার যার কাজে ফেরত পাঠানো হয়েছে। এই পরিস্থিতির জন্য কেউ দোষী হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।