ঢাকা রোববার, ০৭ আগস্ট ২০২২

Star Sangbad || স্টার সংবাদ

স্বস্তির বৃষ্টিতে আমন চারা রোপণে ব্যস্ত দিনাজপুরের কৃষক

ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৬:০১, ৪ আগস্ট ২০২২

স্বস্তির বৃষ্টিতে আমন চারা রোপণে ব্যস্ত দিনাজপুরের কৃষক

শস্যভাণ্ডার হিসেবে খ্যাত দিনাজপুর। এই জেলার ফুলবাড়ীতে টানা কয়েক সপ্তাহের তীব্র খরার পর স্বস্তির বৃষ্টিতে পুরোদমে রোপা আমন ধানের চারা রোপণে ব্যস্ত কৃষক। জমিতে চাষ, আগাছা পরিষ্কার, পানি দেয়া, সার দেয়াসহ নানা কাজে ব্যস্ত তারা। দম ফেলার জো নেই। 

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) সরেজমিন পৌর এলাকাসহ উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে ও কৃষকদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, বর্ষায় সেচবিহীন কম খরচে আমন ধান চাষ করে লাভের স্বপ্ন দেখেন কৃষকরা। সময়মতো বৃষ্টি হওয়ায় কৃষকদের মধ্যে স্বস্তি দেখা দিয়েছে।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, চলতি রোপা আমন মৌসুমে উপজেলায় ১৮ হাজার ১৯০ হেক্টর জমিতে আমন ধান রোপণের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে, যা থেকে ৭৭ হাজার ৬৭১ মেট্রিক টন ধান এবং ৫১ হাজার ৮৪১ মেট্রিক টন চাল পাওয়ার আশা করা হচ্ছে। উপজেলায় এখন পর্যন্ত ৬ হাজার ৩৪০ হেক্টর জমিতে ধান রোপণ করা হয়েছে।

উপজেলার আলাদীপুর ইউনিয়নের বাসুদেবপুর গ্রামের কৃষক নবিউল ইসলাম বলেন, চলতি মৌসুমে তিনি ১ একর জমিতে বিভিন্ন জাতের আমন ধান চাষ করবেন। বৃষ্টি না হওয়ায় দুশ্চিন্তায় ছিলেন। এখন বৃষ্টি হচ্ছে। তাই সময়মতো ধান লাগাতে পেরে তিনি অত্যন্ত খুশি। 

একই গ্রামের কৃষক খাদেমুল ইসলাম ও বাবলু ইসলাম বলেন, বৃষ্টির ওপর নির্ভর করে আমরা আমন চাষ করে থাকি। অনেকদিন পর বৃষ্টি হয়েছে। আমাদের সাড়ে তিন একর জমিতে বৃষ্টির পানি জমেছে। আমন চারা রোপণের উপযোগী করতে জমি চাষ শেষ। এখন চলছে চারা রোপণ। 

খয়েরবাড়ী ইউনিয়নের মুক্তারপুর খইয়ের বন এলাকার কৃষক ইছাহাক হোসেন বলেন, আমার ৩ একর জমিতে বৃষ্টির পানি জমিয়ে পাওয়ার টিলার দিয়ে জমি চাষ করা হয়েছে। এখন পুরোদমে চলছে চারা রোপণ। 

ফুলবাড়ী উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা কৃষিবিদ শাহানুর রহমান বলেন, বৃষ্টি না হওয়ায় রোপা আমন লাগাতে পারেননি অনেক কৃষক। তবে বৃষ্টি একটু দেরিতে হলেও আষাঢ়ের শেষদিকে, অর্থাৎ শ্রাবণ মাস আমন রোপণের উপযুক্ত সময়। এখন আর কৃষকের সেই সমস্যা নেই। আশা করি আমন চাষের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হবে।