ঢাকা শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

Star Sangbad || স্টার সংবাদ

করোনামুক্তির প্রার্থনায় চলছে জন্মাষ্টমীর উৎসব

স্টার সংবাদ

প্রকাশিত: ১৫:২৯, ৩০ আগস্ট ২০২১

করোনামুক্তির প্রার্থনায় চলছে জন্মাষ্টমীর উৎসব

করোনা ভাইরাস থেকে দেশসহ বিশ্বের মুক্তির প্রার্থনা এবং  দেশের কল্যাণ ও মঙ্গল কামনার মধ্য দিয়ে চলছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের জন্মাষ্টমী উৎসব।

সোমবার (৩০ আগস্ট) সকালে চণ্ডীপাঠ ও গীতাযজ্ঞের মধ্য দিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠানমালা। সনাতন ধর্মের অবতার হিসেবে প্রেম, সত্য ও ন্যায় প্রতিষ্ঠার জন্য পৃথিবীতে শ্রীকৃষ্ণ আবির্ভূত হন বলে ভক্তদের বিশ্বাস।

কেন্দ্রীয়ভাবে নানা আনুষ্ঠানিকতায় শ্রীকৃষ্ণের জন্মতিথি উদযাপন করছে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ এবং ঢাকা মহানগর পূজা উদযাপন কমিটি। তবে মহামারির কারণে জন্মাষ্টমীর শোভাযাত্রা এবারো হচ্ছে না। 

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নির্মল চ্যাটার্জি বলেন, মহামারির মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শ্রীকৃষ্ণের জন্মতিথি শুভ জন্মাষ্টমী পালন করা হচ্ছে। সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী এবার জন্মাষ্টমীর শোভাযাত্রা করা হচ্ছে না।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিশ্বাস, প্রায় ৫ হাজার ২০০ বছর আগে ভাদ্র মাসের শুক্লপক্ষের অষ্টমী তিথিতে জন্মগ্রহণ করেছিলেন ভগবান শ্রীকৃষ্ণ। তাঁর জন্মতিথিকেই জন্মাষ্টমী হিসেবে পালন করেন অনুসারীরা।

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সাবেক সভাপতি কাজল দেবনাথ বলেন, সনাতন ধর্মমতে অধর্ম ও দুর্জনের বিনাশ এবং ধর্ম ও সুজনকে রক্ষায় কৃষ্ণ যুগে যুগে পৃথিবীতে আগমন করেন।

চট্রগ্রামের সীতাকুণ্ডের শংকর মঠ ও মিশনের অধ্যক্ষ শ্রীমৎ স্বামী তপনানন্দ গিরি মহারাজ বলেন, ভগবান শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব তিথি উপলক্ষে আমরা শ্রী শ্রীর জন্মাষ্টমী পালন করছি। ভগবান শ্রীকৃষ্ণ যুগে যুগে বিভিন্ন রূপে এসেছেন। ভগবানের যে মহাবাণী শ্রীমৎ ভগবত গীতা আজকে পাঠ হচ্ছে, ভগবান আমাদের সবার জন্য সেই বাণী প্রদান করেছেন। তিনি বলেছেন, যখনই ধর্মের গ্লানি হবে, অধর্মের অভ্যুত্থান হবে তখনই আমি আবির্ভূত হব।

মহামারি থেকে মুক্তির প্রার্থনা করা হচ্ছে জানিয়ে তপনানন্দ বলেন, তিনি যেন আবারো আসেন, এই করোনা ভাইরাস থেকে আমাদের মুক্ত করেন। আবার বাজাও তোমার পঞ্চজন্য সুদর্শনধারী, এসো এসো হৃষিকেশ ধরার ভার হারী।