ঢাকা Saturday, 15 June 2024

মূল্যস্ফীতি-লোডশেডিংয়ে মানুষ কষ্ট পাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী

স্টার সংবাদ ডেস্ক

প্রকাশিত: 15:00, 4 June 2023

আপডেট: 15:02, 4 June 2023

মূল্যস্ফীতি-লোডশেডিংয়ে মানুষ কষ্ট পাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী

ছবি : সংগৃহীত

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মূল্যস্ফীতি আর লোডশেডিংয়ে দেশের মানুষ কষ্ট পাচ্ছে। বিশ্বব্যাপী গ্যাস-তেল-কয়লা সবকিছুর দাম বেড়ে যাওয়াতে এখন বিদ্যুৎ উৎপাদনও ব্যাহত হচ্ছে। টাকা দিয়েও কেনা যাচ্ছে না। 

রোববার (৪ জুন) সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে চিলাহাটি-ঢাকা-চিলাহাটি রুটে নতুন আন্তঃনগর ট্রেনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

দ্রব্যমূল্যের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, করোনা ভাইরাস এবং বিশেষ করে ইউক্রেন-রাশিয়ার যুদ্ধ, তার ওপর স্যাংশন-কাউন্টার স্যাংশনের ফলে বিশ্বব্যাপী প্রতিটি পণ্যের মূল্য বেড়ে গেছে। আমাদের জ্বালানির মূল্য বেড়েছে, গ্যাসের মূল্য বেড়েছে, খাদ্যপণ্যের মূল্য বেড়েছে, গম-চিনি যা কিছু আমরা কিনতে যাচ্ছি, সবকিছুর দাম বেড়ে গেছে, পরিবহন খরচ বেড়ে গেছে।

তিনি বলেন, বিদেশ থেকে আমরা যে ঋণ নিয়েছি, তারা সুদের হার বাড়িয়ে দিয়েছে; যার ফলে আমাদের অর্থনীতির ওপর একটা চাপ আছে, তা মোকাবিলা করার জন্য আমাদের নিজেদেরও কিছু উদ্যোগ আছে।

লোডশেডিংয়ের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা শতভাগ বিদ্যুৎ দেবো: প্রত্যেক ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ দিয়েছিলাম। কিন্তু আজ বিশ্বব্যাপী গ্যাস-তেল-কয়লা সব কিছুর দাম বেড়ে যাওয়াতে এখন বিদ্যুৎ উৎপাদনও ব্যাহত হচ্ছে। টাকা দিয়েও কেনা যাচ্ছে না। এ রকমই অবস্থা দাঁড়িয়েছে। যার জন্য...আমি জানি এই গরমের মানুষের একটু কষ্ট হচ্ছে। একদিকে মূল্যস্ফীতি আর অপরদিকে এখন বিদ্যুৎ নেই—এই দুটি কষ্ট আমার দেশের মানুষ পাচ্ছে।

ইউরোপের সঙ্গে বাংলাদেশের অবস্থার তুলনা করে শেখ হাসিনা বলেন, গত শীতের সময় ইউরোপের দেশগুলো, তারা গরম পানি ব্যবহার করা বন্ধ করে দিয়েছিল। কারণ, সবকিছু ইলেকট্রিসিটিতে চলে। গরম পানি বন্ধ, হিটিং বন্ধ, এ রকম তাদের দুরাবস্থা। এমনকি বাজারে গেলে সীমিতভাবে কিনতে হতো। একটি পরিবার ছয়টির বেশি ডিম কিনতে পারবে না, এক লিটারের বেশি তেল কিনতে পারবে না, তিনটার বেশি টমেটো কিনতে পারবে না—ঠিক এই অবস্থাটা। বাংলাদেশ এখনো সেই দুরাবস্থায় পড়েনি, ইনশাল্লাহ পড়বেও না।

অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী ‘চিলাহাটি এক্সপ্রেস’ উদ্বোধন করেন। ট্রেনটি ঢাকা-চিলাহাটি রুটে সপ্তাহে ৬ দিন চলবে। এই আন্তঃনগর ট্রেনে যাত্রী ধারণক্ষমতা ৮০০ জন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. তোফাজ্জল হোসেন মিয়া। স্বাগত বক্তব্য রাখেন রেলসচিব হুমায়ন কবির।