ঢাকা Tuesday, 18 June 2024

গুজরাটের গেমিং জোনে আগুন : নিহত বেড়ে ৩২

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: 20:56, 26 May 2024

গুজরাটের গেমিং জোনে আগুন : নিহত বেড়ে ৩২

ছবি : সংগৃহীত

ভারতের গুজরাটের রাজকোটে একটি গেমিং জোনে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এখন পর্যন্ত নয় শিশুসহ অন্তত ৩২ জনের মৃত্যু হয়েছে। মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।

গতকাল শনিবার (২৫ মে) টিআরপি গেমিং জোনটিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ছুটির দিনে গেমিং জোনটিতে অনেক শিশু-কিশোর ছিল বলে জানা গেছে।

আজ রোববার (২৬ মে) সকালে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র প্যাটেল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আহতদের খোঁজ নেন।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সাপ্তাহিক ছুটিতে বিশেষ ছাড়ের অফারের পরিপ্রেক্ষিতে টিআরপি নামের ওই জোনে দর্শনার্থীদের ভিড় ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। তবে তদন্ত শেষে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত দেবে কর্তৃপক্ষ।

ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা জানিয়েছেন, কী কারণে আগুন লেগেছিল তা এখনও নিশ্চিত হওয়া যায়নি। আগুন নিয়ন্ত্রণ শেষে ডাম্পিং চলছে। তবে অভিযান চালাতে গিয়ে তারা প্রতিবন্ধকতার মুখোমুখি হচ্ছেন। কারণ অস্থায়ী অবকাঠামো ধসে পড়েছে এবং বায়ু প্রবল বেগে বইছে।

প্রতিবেদনে আরো বলা হয়েছে, আগুনের তীব্রতা এতই বেশি ছিল যে কয়েক কিলোমিটার দূর থেকেও ধোঁয়ার দেখা মিলেছে। মরদেহগুলো শনাক্ত করা যাচ্ছে না। এ কারণে নিহতদের ও তাদের স্বজনদের ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

রাজকোটের মেয়র নয়না পেধাদিয়া ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে জানান, বিনোদনকেন্দ্রটির ফায়ার সার্ভিসের এনওসি (নো অবজেকশন সার্টিফিকেট) ছিল না। এনওসি ছাড়া এত বড় গেম জোন কীভাবে পরিচালিত হচ্ছিল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কোনো রাজনীতি সহ্য করা হবে না।

তিনি আরো বলেন, জোনটির মাত্র একটি বহির্গমন পথ ছিল। আগুন লাগার পর ওই পথে আতঙ্ক ছড়ায়।

রাজকোট ফায়ার অফিসার ইলেশ খের সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, প্রবেশমুখে অস্থায়ী অবকাঠামো ধসে পড়ায় লোকজন আটকা পড়েছিল।

অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (এসিপি) বিনায়ক প্যাটেল বলেছেন, যারা আগুনে পুড়ে গেছেন তাদের মরদেহ শনাক্তে ডিএনএ নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা তদন্তে বিশেষ তদন্তকারী দলকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে। আগুনের ঘটনায় টিআরপি গেমিং জোনের মালিক ও ম্যানেজারকে আটক করেছে পুলিশ।

গুজরাট পুলিশ রাজ্যের সব গেমিং জোন পরিদর্শন ও অগ্নিনিরাপত্তার অনুমতি ছাড়াই যেগুলো চলছে তা বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে।