ঢাকা Tuesday, 18 June 2024

ঋণখেলাপিদের ধরতে চাই : অর্থমন্ত্রী

স্টার সংবাদ

প্রকাশিত: 20:12, 26 May 2024

ঋণখেলাপিদের ধরতে চাই : অর্থমন্ত্রী

ঋণখেলাপিদের ধরার প্রতিজ্ঞা করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী। তিনি বলেছেন, এখন ঋণখেলাপিদের ধরতে হবে, আমি ধরতে চাই। 

রোববার (২৬ মে) অর্থ মন্ত্রণালয়ে নিজ কার্যালয়ে বসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন অর্থমন্ত্রী।

ঋণখেলাপিরা অনেক শক্তিশালী, আপনি ধরতে পারবেন কি না - সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, দেখা যাক পারি কি না। 

এ সময় পাল্টা প্রশ্ন রেখে মন্ত্রী বলেন, প্রাক্তন আইজিপি কি ধরা পড়েছে? সাংবাদিকরা বলেন, না। মন্ত্রী বলেন, কেন না, তার সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ কি দেয়া হয়েছে। 

সাবেক সেনাপ্রধানের প্রসঙ্গ তুলে ধরে অর্থমন্ত্রী বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। সেটি এখন পাবলিকলি চলে আসছে। 

সাংবাদিকরা এসময় বলেন, সে ব্যাপারে তো সরকার কিছু করেনি। জবাবে মন্ত্রী বলেন, সরকারি কিছু করেনি, কিন্তু সেনাবাহিনী করবে। 

তিনি আরো বলেন, বাহিনীতে না থাকলেও সেনাবাহিনী করতে পারবে। এখানে সরকারের সমর্থন আছে কিনা প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, সমর্থন ছাড়া কি পারবে। 

এর আগে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহিবলের (আইএমএফ) ভারতীয় অঞ্চলের নির্বাহী পরিচালক কৃষ্ণমূর্তি ভেনকাটা সাবরামাইন, ঢাকাস্থ আলজেরিয়ার শার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স বেনতালিব বসমা এবং বাংলাদেশে নিযুক্ত ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে নিজ মন্ত্রণালয়ে সাক্ষাৎ করেন অর্থমন্ত্রী। 

সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে দেশের অর্থনীতি, রিজার্ভ, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ভূমিকা, বাজেট নিয়ে নানা প্রশ্নের জবাব দেন আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

অর্থমন্ত্রী বলেন, অর্থনীতি আগের জায়গায় নিয়ে আসা হবে। তবে অনেক অসুবিধা ও বাধা আছে, সেটি ওভারকাম করতে হবে। আশা করছি এসব অসুবিধা থাকবে না। অসুবিধা দূর করতে নানা উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে। এতে দাতা সংস্থা আইএমএফও সন্তুষ্ট। 

এ সময় সাংবাদিকরা দৃষ্টি আকর্ষণ করে অর্থমন্ত্রীকে বলেন, আপনার সন্তুষ্টির পরও অর্থনীতিবিদ দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য বলেছেন...। এসময় সাংবাদিকদের থামিয়ে দিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, দেবপ্রিয়টা কে? আমি তো চিনি তাকে। 

সাংবাদিকরা আরো বলেন, অর্থনীতি দুর্যোগে পড়েছে - এটি ড. ওয়াহিদউদ্দিন মাহমুদ বলেছেন, আপনি অর্থমন্ত্রী হিসেবে স্বীকার করবেন কি না? মন্ত্রী বলেন, দুর্যোগটা কি, দুর্যোগ মানে কি, আমি বুঝলাম না, শোনেন বিরুদ্ধে বললেই কি চ্যাম্পিয়ন হয়ে গেল। দেবপ্রিয় তো বলবেই। 

কেন বলবে - সংবাদিকরা জানতে চাইলে অর্থমন্ত্রী বলেন, উনি তো (দেবপ্রিয়) ওদের লোক, বিরোধীপক্ষের। কিছুই হয় নাই, সব নষ্ট গেছে - তাহলে কি?

বিরোধীপক্ষ ক্ষমতায় থাকার সময়ও একই কথা তিনি (দেবপ্রিয় ভট্রাচার্য) বলতেন, সরকারের সমালোচনা করলেই কি সব বিরোধীপক্ষের। সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে অর্থমন্ত্রী বলেন, না, কিন্তু তার টোনটা দেখতে হবে। কি বলে সব নষ্ট হয়ে গেল কিছুই না। অর্থনীতির কোন সূচকে ভালো আছি, জানতে চাইলে মন্ত্রী এর কোনো জবাব না দিয়ে বলেন, আপনারই দেখেন।