ঢাকা Saturday, 15 June 2024

পরিকল্পনাকারী শাহীনকে দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি আনারের কন্যার

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

প্রকাশিত: 18:05, 25 May 2024

পরিকল্পনাকারী শাহীনকে দ্রুত গ্রেপ্তারের দাবি আনারের কন্যার

এমপি আনারের বাড়ির সামনে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের অবস্থান কর্মসূচি

ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) ও কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ারুল আজীম আনারকে নৃশংসভাবে হত্যার পরিকল্পনাকারীকে আটক ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন এমপিকন্যা মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন।

তিনি বলেছেন, বাবাকে হত্যার পরিকল্পনাকারী আক্তারুজ্জামান শাহীনকে গ্রেপ্তার করে দ্রুত আইনের আওতায় আনা হোক। সঙ্গে তার পরিবারের সদস্যদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হোক। তাহলে হয়তো অনেক তথ্য বেরিয়ে আসবে। 

ডরিন আরো বলেন, অনেক আগে কালীগঞ্জে আসতো শাহীন, খেলা করতো। বাবার সঙ্গে তার পরিচয় থাকতে পারে, তবে আমার বাবার সঙ্গে শাহীনের ব্যবসা ছিল বলে জানা নেই।

শনিবার (২৫ মে) দুপুরে এমপিকন্যা মুমতারিন ফেরদৌস ডরিনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টুসহ অন্য নেতাকর্মীরা। সেখানে এমপি আনারের পরিবারের অন্য সদস্যরাসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন। সাক্ষাৎকালে ডরিন এসব কথা বলেন।

এসময় জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টু বলেন, আনারের মরদেহ পাওয়ার পরই আওয়ামী লীগের দলীয় কর্মসূচি দেয়া হবে।

সেখানে উপস্থিত সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মীর আবিদুর রহমান জানান, এমপি পরিবারের নিরাপত্তায় কাজ করছি। যেহেতু ঢাকা ও কলকাতায় মামলা হয়েছে সেখান থেকেই তদন্ত করছে। তাদের নির্দেশনা এলে আমরা সেভাবে কাজ করবো।

এদিকে আনোয়ারুল আজীম আনারকে হত্যার বিচার, হত্যার পরিকল্পনাকারীকে আটক ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে একের পর এক কর্মসূচি পালন করে যাচ্ছে উপজেলা আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন সামাজিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

শনিবার বেলা ১১টার দিকে সংসদ সদস্যের বাড়ির সামনে ঘণ্টাব্যাপী অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন উপজেলা আওয়ামী লীগসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

তারা বলেন, আমাদের এমপিকে হত্যার জন্য দীর্ঘদিন ধরেই ঘাতকরা পরিকল্পনা করেছে। এমপিকে হত্যার পর তার লাশ টুকরো টুকরো করা হয়েছে। আমরা সবকিছুর জবাব চাই। গভীর ষড়যন্ত্রে যারা জড়িত, তাদের সবাইকে একে একে বের করে আনতে হবে, না হয় সবার জীবন পড়বে হুমকির মুখে।

প্রশাসনের উদ্দেশে নেতাকর্মীরা বলেন, আপনারা যদি লাশ ফিরিয়ে আনতে না পারেন তাহলে অন্তন্ত এমপির রক্তমাখা জামা-কাপড়গুলো এনে দিন।

বক্তারা বলেন, এমপি আনার হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছেন। তাকে দেশে এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির পাশাপাশি হত্যার সঙ্গে আরো যদি কেউ জড়িত থাকে তাদেরও আইনের আওতায় আনার দাবি জানান।

এতে স্থানীয় আওয়ামী নেতা মোস্তাফিজুর রহমান বিজু, সদ্য নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান শিবলী নোমানী, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসেন ঠান্টু, কালীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আশরাফুল আলমসহ শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, গত ১২ মে চিকিৎসার জন্য ভারতে গিয়েছিলেন সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আজীম আনার। ১৩ মে তাকে কৌশলে ডেকে নিয়ে কলকাতার নিউটাউন এলাকার একটি আবাসিক ভবনে হত্যা করে লাশ টুকরো টুকরো করে ট্রলি ব্যাগে নিয়ে বিভিন্ন স্থানে ফেলে দেয় হত্যাকারীরা। এ ঘটনায় ভারত ও বাংলাদেশে ছয়জন গ্রেপ্তার হলেও মূল পরিকল্পনাকারী আক্তারুজ্জামান শাহীন যুক্তরাষ্ট্রে পলাতক রয়েছেন।

এদিকে হত্যার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার তিনদিন পেরিয়ে গেলেও এমপি আনারের লাশের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।