ঢাকা Saturday, 15 June 2024

লক্ষ্মীপুরে জোড়া খুনের প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তারের দাবিতে গণমিছিল

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: 22:04, 25 May 2023

লক্ষ্মীপুরে জোড়া খুনের প্রধান আসামিকে গ্রেপ্তারের দাবিতে গণমিছিল

লক্ষ্মীপুরে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের দুই নেতাকে হত্যামামলার প্রধান আসামি বশিকপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা আবুল কাসেম জেহাদীকে গ্রেফতারের দাবিতে গণমিছিল করেছে এলাকাবাসী। একই সঙ্গে জেহাদীর সহযোগীদের ব্যবহার করা অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারেরও দাবি জানান তারা। 

বৃহস্পতিবার (২৫ মে) বিকেলে এই গণমিছিলের আয়োজন করে স্থানীয়রা। এতে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষ অংশ নেন।

মিছিলটি বশিকপুর বাজার থেকে শুরু হয়ে পোদ্দার বাজার, রশিদপুর, বালাশপুর, বিরাহিমপুরসহ বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ শেষে বিরাহিমপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রাঙ্গণে প্রতিবাদ সমাবেশে মিলিত হয়। 

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আমির হোসেন, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, ইউপি চেয়ারম্যান ও নিহত নোমানের বড় ভাই মাহফুজুর রহমান, নিহত রাকিব ইমামের ভাই মো. রুবেল প্রমুখ।

উল্লেখ্য, ২৫ এপ্রিল রাতে সদর উপজেলার বশিকপুর ইউনিয়নের পোদ্দার বাজার এলাকায় জেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবদুল্লাহ আল নোমান ও জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রাকিব ইমামকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এসময় তাদের ব্যবহৃত মোটরসাইকেল ও মোবাইল ফোন নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। 

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বলেন, জোড়া খুনের এক মাস পার হলেও মামলার প্রধান আসামি আবুল কাসেম জেহাদী ও অন্য আসামি বাবলু, শরীপ, কালুকে এখনো গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এছাড়া হত্যার কাজে ব্যবহৃত অস্ত্র এখনো উদ্ধার করা হয়নি। অবিলম্বে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও মামলার বাকি আসামিদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান তারা।

এই জোড়া খুনের পরদিন ২৬ এপ্রিল রাত ১টার দিকে নিহত নোমানের বড় ভাই মাহফুজুর রহমান বাদী হয়ে ৩৩ জনের বিরুদ্ধে চন্দ্রগঞ্জ থানায় হত্যামামলা করেন। এতে চন্দ্রগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবুল কাশেম জেহাদীকে প্রধান করে ১৮ জনের নাম উল্লেখ ও অজ্ঞাতপরিচয় ১৫ জনকে আসামি করা হয়। মামলার পর থেকে র‌্যাব ও পুলিশ অভিযান চালিয়ে প্রায় ১৮ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।