ঢাকা Wednesday, 24 July 2024

প্রজ্ঞাপন হলেই মন্ত্রী-উপদেষ্টাদের পদত্যাগ কার্যকর

স্টার সংবাদ

প্রকাশিত: 17:52, 20 November 2023

আপডেট: 17:53, 20 November 2023

প্রজ্ঞাপন হলেই মন্ত্রী-উপদেষ্টাদের পদত্যাগ কার্যকর

প্রধানমন্ত্রীর অনুরোধে দুজন টেকনোক্র্যাট মন্ত্রী ও একজন প্রতিমন্ত্রী এবং তিনজন উপদেষ্টা এরই মধ্যে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি হলেই পদত্যাগপত্র কার্যকর হবে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মো. মাহবুব হোসেন। 

তিনি আরো জানান, প্রজ্ঞাপন জারির আগে পদত্যাগপত্র জমা দেয়া মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও উপদেষ্টারা দায়িত্ব পালন করতে পারবেন। ।

সোমবার (২০ নভেম্বর) বিকেলে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মো. মাহবুব হোসেন এসব তথ্য জানান। 

এর আগে গতকাল রোববার (১৯ নভেম্বর) বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান, ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম পদত্যাগপত্র জমা দেন। তারা তিনজনই টেকনোক্র্যাট (সংসদ সদস্য নন) কোটায় মন্ত্রিসভায় স্থান পেয়েছিলেন। সংবিধান অনুযায়ী, মন্ত্রিসভার এক-দশমাংশ টেকনোক্র্যাট হিসেবে নিয়োগ দেয়া যায়।

এই তিনজনের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টারাও পদত্যাগ করেছেন বলে জানা গেছে। 

মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে টেকনোক্র্যাট দুই মন্ত্রী ও একজন প্রতিমন্ত্রী এবং তিনজন উপদেষ্টা পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। 

তিনি বলেন, তারা পদত্যাগপত্র দিলেও তা কার্যকর করার জন্য একটা পদ্ধতি আছে, সেই প্রক্রিয়া আমরা শুরু করেছি। প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলেই তা কার্যকর হবে।

কোন তিন উপদেষ্টা পদত্যাগ করেছেন জানতে চাইলে সচিব বলেন, অর্থনৈতিক বিষয়ক উপদেষ্টা (ড. মশিউর রহমান), বিদ্যুৎ ও জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা (ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী) এবং আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক উপদেষ্টা (ড. গওহর রিজভী)।

তিনি আরো জানান, যখন গেজেট প্রকাশ করে পদত্যাগ কার্যকর করা হবে, তখন থেকে এসব মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী অফিস করবেন না। কিন্তু এখন তাদের অফিস করতে বাধা নেই।

টেকনোক্র্যাট মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীরা পদত্যাগ করার পর ওই পদগুলো শূন্য হয়ে যাবে। সেক্ষেত্রে নির্দেশনা কী জানতে চাইলে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, আগে তাদের পদত্যাগ গ্রহণ করা হবে এবং গেজেট হবে। তারপরে এই প্রসঙ্গ আসবে। যেহেতু মন্ত্রণালয় ভাগ করে দেয়া প্রধানমন্ত্রীর এখতিয়ার, তখন তিনি সেটা বিবেচনা করবেন।

তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টার বিষয়ে এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, মন্ত্রিপরিষদ থেকে যাদের নিয়োগ প্রক্রিয়া করা হয়েছে, সেগুলো নিয়ে আমরা কথা বলছি। তথ্য ও প্রযুক্তি উপদেষ্টা মহোদয়ের প্রসঙ্গটা হলো, তাকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে, একেবারে অবৈতনিক।