ঢাকা Wednesday, 24 July 2024

শিখ নেতা হত্যাকাণ্ড নিয়ে ভারত-কানাডা সম্পর্কে উত্তাপ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক 

প্রকাশিত: 15:28, 19 September 2023

আপডেট: 21:38, 19 September 2023

শিখ নেতা হত্যাকাণ্ড নিয়ে ভারত-কানাডা সম্পর্কে উত্তাপ

শিখ ও স্বাধীন খালিস্তান রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা আন্দোলনের নেতা হারদ্বীপ সিং নিজ্জার হত্যাকাণ্ড নিয়ে এবার মুখোমুখি ভারত-কানাডা। ভারতের বিরুদ্ধে হারদীপ সিং নিজ্জারকে হত্যার অভিযোগ এনেছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। কানাডার এই অভিযোগকে ‘অযৌক্তিক’ বলে দাবি করেছে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। এ নিয়ে দেশ দুটির কূটনীতিক পর্যায়ে ছড়াচ্ছে উত্তাপ। এরই মধ্যে শুরু হয়েছে পাল্টাপাল্টি বহিষ্কারের ঘটনা।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ইতিমধ্যেই ভারতের  শীর্ষ কূটনীতিক পবন কুমার রাইকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তিনি কানাডায় ভারতের বিদেশী গোয়েন্দা সংস্থা রিসার্চ অ্যান্ড অ্যানালাইসিস উইং র এর প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

দেশটির এমন পদক্ষেপের পাল্টা জবাবে মঙ্গলবার (১৯ সেপ্টেম্বর) কানাডার একজন শীর্ষ কূটনীতিককে বহিষ্কার করেছে নয়াদিল্লি।এক বিবৃতিতে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, ‘আগামী পাঁচ দিনের মধ্যে কানাডিয়ান গোয়েন্দা সংস্থার স্টেশন চিফ অলিভিয়ার সিলভেস্টার কে ভারত ত্যাগ করার জন্য বলা হয়েছে।

খালিস্তান টাইগার ফোর্স (কেটিএফ) এর প্রধান হরদীপ সিং নিজ্জার। তিনি পাঞ্জাবের জলন্ধর জেলার শাহকোটের কাছে ভরসিংহপুর গ্রামের বাসিন্দা। কানাডায় স্থানান্তরিত হয়ে নাগরিকত্ব নেয় সে।  

এর আগে দেশটির পাঞ্জাব প্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিয়ন্ত সিংকে হত্যার অভিযোগ রয়েছে তার এ সংগঠনটির বিরুদ্ধে। ২০১৮ সালে ভারতে পঞ্জাব সরকারের 'মোস্ট ওয়ান্টেড'-এর তালিকায় নাম ছিল এই খালিস্তানি নেতার। 

চলতি বছরের ১৯ জুন সকাল ৬টায় কানাডার সারে শহরে গুরু নানক শিখ  গুরুদুয়ারা চত্বরে হত্যাকাণ্ডের শিকার হন নিজ্জার। তিনি ঐ এলাকার গুরু নানক শিখ গুরুদ্বারের প্রধান ছিলেন।