ঢাকা Wednesday, 24 July 2024

নাইজারে ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে জিম্মি করা হয়েছে: ম্যাক্রোঁ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক 

প্রকাশিত: 13:40, 16 September 2023

নাইজারে ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে জিম্মি করা হয়েছে: ম্যাক্রোঁ

নাইজারে ফরাসি রাষ্ট্রদূত ও কূটনীতিকদের দেশটির সৈন্যরা জিম্মি করেছে বলে অভিযোগ করেছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ।

শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) ফ্রান্সের কোট ডি’অর অঞ্চলে একটি সফরের সময় সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ফরাসী রাষ্ট্রদূত সিলভাইন ইত্তে সহ অন্যান্য ফরাসি কূটনীতিকদের ফরাসি দূতাবাসে জিম্মি করা হয়েছে । রাষ্ট্রদূতের কাছে খাবার পৌঁছে দেওয়াও বন্ধ রয়েছে। আমাদের রাষ্ট্রদূতরা সামরিক শাসনের দেওয়া রেশন খাচ্ছেন।

ফরাসী রাষ্ট্রদূতসহ অন্যান্য কূটনীতিকদের ফিরিয়ে আনার প্রশ্নে ম্যাক্রোঁ বলেন, আমরা রাষ্ট্রদূতকে শিগগিরই দেশে ফিরিয়ে আনব। এ বিষয়ে নাইজারের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট বাজুমের সঙ্গে আলোচনা চলমান রয়েছে। তারা নাইজারের বৈধ কর্তৃপক্ষ। আমি প্রতিদিন তার সাথে কথা বলি।

প্রকৃতপক্ষে, নাইজারে সাম্প্রতিক অভ্যুত্থানের পর প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি বাজুমকেও জিম্মি করেছে দেশটির সেনা সদস্যরা। এর পর থেকে নাইজার সরকার এবং ফ্রান্সের মধ্যে টানাপোড়েন অব্যাহত রয়েছে। কারণ, ক্ষমতাচ্যুত ও সাবেক প্রেসিডেন্ট বাজুমকে সমর্থন দিচ্ছে ফ্রান্স। 

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, নাইজারের সৈন্যরা অভ্যুত্থানের পরপরই ইত্তেকে দেশ ছাড়ার নির্দেশ দিয়েছিল। যদিও পরে নাইজার ইত্তে এর ভিসা বাতিল করে।

সম্প্রতি নাইজারে সেনা অভ্যুত্থান ঘটিয়েছে। নাইজারের সেনাবাহিনী দাবি করেছিল যে তারা রাষ্ট্রপতি মোহাম্মদ বাজুমের সরকারকে উৎখাত করেছে। তারা প্রেসিডেন্ট বাজুমকে কারারুদ্ধ করেছে। সৈন্যরা জাতিসংঘ-যুক্তরাষ্ট্রের হস্তক্ষেপে আপত্তি জানায় এবং এমনকি তাদের হুমকিও দেয়। 

এ সময় নাইজারের জাতীয় চ্যানেলে কর্নেল আমাদু আব্দ্রামানে  লাইভে এসে বললেন, দেশের অবনতিশীল নিরাপত্তা ব্যবস্থা ও দুঃশাসনের কারণে আমরা রাষ্ট্রপতি শাসনের অবসান ঘটাচ্ছি। নাইজারের সীমান্ত সিল করা হয়েছে। এখন কেউ দেশের বাইরে যেতে পারবে না, বাইরে থেকে দেশে ঢুকতে পারবে না। সারা দেশে কারফিউ জারি। সরকারি কর্মকর্তাদের বরখাস্ত করা হয়েছে।