ঢাকা শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২

Star Sangbad || স্টার সংবাদ

এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ ২৮ নভেম্বর

স্টার সংবাদ

প্রকাশিত: ১৩:৫০, ২১ নভেম্বর ২০২২

আপডেট: ১৪:৩৮, ২১ নভেম্বর ২০২২

এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ ২৮ নভেম্বর

ছবি: ইন্টারনেট

চলতি বছরের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল আগামী ২৮ নভেম্বর (সোমবার) প্রকাশ করা হবে বলে জানা গেছে। ফল প্রকাশের জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয় ২৮ নভেম্বরকে দিনক্ষণ চূড়ান্ত করেছে বলে মন্ত্রণালয়সহ কয়েকটি সূত্রে জানা গেছে।

মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করে জানান, ২৮ নভেম্বর এবারের এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশের জন্য চূড়ান্ত হয়েছে।

ওই দিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সময় দিতে পারবেন, এজন্য সেদিন ফল প্রকাশ করা হবে। প্রতি বছর প্রধানমন্ত্রী পাবলিক পরীক্ষার ফল প্রকাশ অনুষ্ঠান উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, আগামী ২৮, ২৯ বা ৩০ নভেম্বর ফল প্রকাশের অনুমতি চেয়ে শিক্ষা বোর্ডগুলোর চেয়ারম্যানদের মোর্চা আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির পক্ষ থেকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছিল। আগামী ২৯ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৫ দিনের রাষ্ট্রীয় সফরে জাপান যাচ্ছেন বলে জানা গেছে। তাই আগামী ২৮ নভেম্বর ফল প্রকাশ করা হবে বলেও ওই সূত্রগুলো জানান।

এর আগে, আগামী ২৮ নভেম্বর এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ হতে পারে এমন সম্ভাবনার কথা জানিয়েছিল আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক তপন কুমার সরকার।

তিনি গণমাধ্যমকে জানান, এসএসসির ফল প্রকাশের তারিখ নির্ধারণের প্রস্তাবনা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পাঠানো হয়েছিল। যা আগামী ২৮ নভেম্বর এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ হতে পারে। সোমবার শিক্ষামন্ত্রণালয়ের একাধিক কর্মকর্তাসহ একাধিক সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে ফল প্রকাশের জন্য ২৮ নভেম্বর চূড়ান্ত হয়েছে।

এবার ২০ লাখ ২১ হাজার শিক্ষার্থী এসএসসি ও সমমানের ফল প্রকাশের অপেক্ষায় আছেন। পরীক্ষা শেষ হওয়ার ৬০ দিনের মধ্যে ফল প্রকাশের কথা। সে ৬০ দিন শেষ হবে আগামী ৩০ নভেম্বর।

গত ১৫ সেপ্টেম্বর সারাদেশে একযোগে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা শুরু হয়। ১ অক্টোবর উচ্চতর গণিত (তত্ত্বীয়) পরীক্ষার মাধ্যমে এসএসসি পরীক্ষা শেষ হয়। ১০ থেকে ১৫ অক্টোবরের মধ্যে অনুষ্ঠিত হয় ব্যবহারিক পরীক্ষা। এ বছর ৯টি সাধারণ শিক্ষাবোর্ড, মাদ্রাসা এবং কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের অধীনে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় মোট ২০ লাখ ২১ হাজার ৮৬৮ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেন। ৯টি সাধারণ ধারা শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষার্থী ছিলেন ১৫ লাখ ৯৯ হাজারের বেশি।