ঢাকা বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

Star Sangbad || স্টার সংবাদ

কৃষক হত্যা ও বাবা-ছেলে নিহতের ঘটনায় ৪ জন গ্রেফতার

শেরপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ১৫:২০, ২৩ জানুয়ারি ২০২৩

কৃষক হত্যা ও বাবা-ছেলে নিহতের ঘটনায় ৪ জন গ্রেফতার

শেরপুরের চাঞ্চল্যকর কৃষক হত্যা মামলার ৩ আসামিসহ সড়ক দুর্ঘটনায় বাবা-ছেলেসহ তিনজন নিহতের ঘটনায় পলাতক ট্রাক ড্রাইভারকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৪ জামালপুর ক্যাম্প। আইনগত ব্যবস্থা নিতে গ্রেফতারকৃতদের পৃথক পৃথক মামলায় শেরপুর সদর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

র‍্যাব-১৪, জামালপুর ক্যাম্প কর্তৃক গ্রেফতারকৃতরা হলেন- চাঞ্চল্যকর কৃষক হত্যা মামলার আসামি মো. উমেদ আলী (২২), মো. মিজানুর রহমান (২০), মো. সোহেল (২৫) এবং সড়ক দুর্ঘটনায় বাবা-ছেলেসহ ৩ জন নিহতের ঘটনায় পলাতক ট্রাক ড্রাইভার মো. মাসুম মিয়া (৩০)।

জামালপুর ক্যাম্পের প্রেস রিলিজে জানানো হয়েছে, কোম্পানি কমান্ডার স্কোয়াড্রন লিডার আশিক উজ্জামান এবং সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার এম এম সবুজ রানার নেতৃত্বে র‌্যাবের অভিযানে ২২ জানুয়ারি রাতে জেলার নালিতাবাড়ী থানার জারুয়াপাড়া, দক্ষিণ কাপাসিয়া গ্রমের আমজাদ হোসেনের বাড়ি থেকে হত্যা মামলার অন্যতম ওই প্রধান ৩ আসামিকে গ্রেফতার করা হয়।

উল্লেখ্য, সদর থানার প্রতাবিয়া গ্রামের কৃষক রফিক মিয়ার (৬০) রক্তাক্ত মরদেহ বাড়ির পাশের কাঠের বাগান থেকে ২০ জানুয়ারি (শুক্রবার) ভোরে উদ্ধার করে সদর থানা পুলিশ। নিহত রফিক মিয়া প্রবাতিয়া পূর্বপাড়া গ্রামের মৃত শাহ ফকিরের ছেলে। গত ১৯ জানুয়ারি রাত সাড়ে ১১টার দিকে চা খাওয়ার জন্য স্থানীয় বটতলা বাজারের উদ্দেশে বের হয়ে রফিক মিয়া আর বাড়ি ফিরেনি। পরদিন বাড়ির পাশের কবরস্থান সংলগ্ন কাঠের বাগানে তার লাশ পড়ে থাকতে দেখে ভিকটিমের পুত্রবধূ তারা বানু। নিহত রফিকের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতের রক্তাক্ত জখমের চিহ্ন ছিল। ওই ঘটনায় নিহতের ছেলে মো. নবী হোসেন শেরপুর সদর থানায় হত্যা মামলা নং- ৩৭, তারিখ ২০/০১/২৩ ইং দায়ের করেন।

অপর ঘটনায় নিহত রফিকুল ইসলাম (৪০) ছেলে রাব্বিকে ডাক্তার দেখিয়ে বাড়ি ফেরার পথে পৌর এলাকার তাতালপুর বাজার এলাকায় ট্রাকচাপায় ছেলে রাব্বিসহ পিতা-পুত্র উভয়েই নিহত হন। দুর্ঘটনায় জুবাইল আহমেদ (১৮) নামের এক কলেজ ছাত্র‌ও নিহত এবং তিনজন গুরুতর আহত হন। ওই ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই মো. আশরাফুল (৩০) বাদী হয়ে শেরপুর সদর থানায় মামলা নং- ২৪, তারিখ ১৪-০১-২০২৩ ইং দায়ের করেন।

র‌্যাবের অভিযানে ২৩ জানুয়ারি শেরপুর সদর থানার দিকপাড়া এলাকা থেকে রাত ১টা ২০ মিনিটের দিকে ট্রাক ড্রাইভার মাসুম মিয়াকে (৩০) গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাদে মাসুম মিয়া জানান, দীর্ঘদিন থেকেই বিনা ড্রাইভিং লাইসেন্সে দেশের বিভিন্ন স্থানে ট্রাক চালিয়ে আসছিল সে।