ঢাকা বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১

Star Sangbad || স্টার সংবাদ

পেঁয়াজ সংরক্ষণে ব্যবহার হবে নেদারল্যান্ডসের প্রযুক্তি

স্টার সংবাদ

প্রকাশিত: ১৬:০৬, ১৩ নভেম্বর ২০২১

পেঁয়াজ সংরক্ষণে ব্যবহার হবে নেদারল্যান্ডসের প্রযুক্তি

ছবি : পিআইডি

দেশে পেঁয়াজের উৎপাদন বৃদ্ধি, সংরক্ষণ ও সংরক্ষণকাল বাড়াতে নেদারল্যান্ডসের প্রযুক্তি ও দক্ষতা কাজে লাগানো হবে। এছাড়া আন্তর্জাতিক বাজারে পেঁয়াজ রফতানিতেও বাংলাদেশকে সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছে দেশটি। 

এদিকে আলু উৎপাদন ও সরবরাহের বিষয়েও নেদারল্যান্ডসের সঙ্গে বাংলাদেশের সহযোগিতা এগিয়ে চলেছে। ভবিষ্যতে দেশটি আদা-রসুনের ক্ষেত্রেও এভাবে সহযোগিতা করার কথা জানিয়েছে। দুই দেশের মধ্যে আলোচনা হয়েছে আম পাঠানো নিয়েও।

নেদারল্যান্ডস সফররত কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম মেম্বার ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক এসব কথা জানিয়েছেন। শনিবার (১৩ নভেম্বর) কৃষি মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, নেদারল্যান্ডসের ইমেলুর্ডে শীর্ষস্থানীয় পেঁয়াজ উৎপাদন, প্রক্রিয়াজাত, প্যাকেজিং ও রফতানিকারক প্রতিষ্ঠান ‘ওয়াটারম্যান ওনিয়ন্স’ পরিদর্শন ও কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে কৃষিমন্ত্রী এ কথা জানান।

প্রসঙ্গত, ওয়াটারম্যান ওনিয়ন্স বিশ্বে বছরে প্রায় ১ লাখ ৫০ হাজার টন পেঁয়াজ রফতানি ও বিপণন করে থাকে।

কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বাংলাদেশ সরকার পেঁয়াজে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনে নেদারল্যান্ডস থেকে পেঁয়াজের উন্নত জাত, উৎপাদন ও সংরক্ষণকাল বাড়ানোর প্রযুক্তি আনতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। বাংলাদেশে সেপ্টেম্বর-ডিসেম্বর মাসে পেঁয়াজের ঘাটতি দেখা দিলে নেদারল্যান্ডস থেকে আমদানির বিষয়টিও বিবেচনা করা যেতে পারে বলে আলোচনা হয়। কারণ সেপ্টেম্বরেও সেখানে পেঁয়াজ উৎপাদন হয়।

পরে কৃষিমন্ত্রী দেশটির আন্দিকে অবস্থিত শাকসবজি প্রক্রিয়াকরণ, স্টোরেজ সরঞ্জাম ও কৃষিযন্ত্র নির্মাতা-বিপণন প্রতিষ্ঠান ‘অলরাউন্ড ভেজিটেবল প্রসেসিং’ পরিদর্শন করেন। এ সময় মন্ত্রী বাংলাদেশে যৌথ উদ্যোগে এ রকম শিল্প স্থাপনের আহ্বান জানান।  

তিনি বলেন, বাংলাদেশে বিনিয়োগের অনুকূল পরিবেশ ও সব সুবিধা রয়েছে। বাংলাদেশ সরকার এক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় সহযোগিতাও দেবে।

নেদারল্যান্ডস সফররত বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় কৃষিপণ্য রফতানিকারক ও খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরাও এ ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেন।
  
একই দিন কৃষিমন্ত্রী ইমেলুর্ডে অ্যাগ্রোফুড ক্লাস্টারে আলুর উন্নত জাত, উৎপাদন, প্রসেস ও সংরক্ষণ প্রযুক্তি ঘুরে দেখেন। আলু উৎপাদনে জড়িত বিভিন্ন কোম্পানির প্রতিনিধিদের সঙ্গে তিনি মতবিনিময় করেন। দেশে রফতানিযোগ্য আলুর উৎপাদন ও আলু সংরক্ষণে প্রযুক্তিগত সহায়তা কামনা করেন আবদুর রাজ্জাক।  

এ সময় সরকারি-বেসরকারি প্রতিনিধিদলের সদস্য, কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. রুহুল আমিন তালুকদার, কৃষি বিপণন অধিদফতরের মহাপরিচালক মোহাম্মদ ইউসুফ, নেদারল্যান্ডসে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম রিয়াজ হামিদুল্লাহ, প্রাণ আরএফএল গ্রুপের চেয়ারম্যান ও সিইও আহসান খান চৌধুরী, এসিআই অ্যাগ্রো লিংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও এফএইচ আনসারী, স্কয়ার ফুড অ্যান্ড বেভারেজের চিফ অপারেটিং অফিসার পারভেজ সাইফুল ইসলাম, জেমকন গ্রুপের ডিরেক্টর কাজী ইনাম আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

নেদারল্যান্ডসে বাংলাদেশ দূতাবাসের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, কৃষিমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীরা দেশটির বৈদেশিক বাণিজ্য ও উন্নয়ন সহায়তামন্ত্রী ছাড়াও দেশটির কৃষি মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী, বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে পরিচিত ওয়াজেনিনজেন ইউনিভার্সিটির প্রেসিডেন্ট, শীর্ষস্থানীয় কৃষিজাত পণ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি ও বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলোচনা করেছেন।